• মহানগর

    রাঙ্গুনিয়ায় সাংবাদিককে মারধর : আসামিদের গ্রেপ্তারে আল্টিমেটাম

      প্রতিনিধি ২৭ ডিসেম্বর ২০২২ , ৯:৩৫:০৫ প্রিন্ট সংস্করণ

    চট্টবাণী: চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় সাংবাদিক আবু আজাদের ওপর হামলার প্রতিবাদে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে)।

    মঙ্গলবার (২৭ ডিসেম্বর) চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব চত্বরে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।



    সমাবেশ থেকে ঘটনায় জড়িত মূল অপরাধী ইউপি মেম্বার মহিউদ্দিন তালুকদার মোহন এবং ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজ উদ্দিন চৌধুরীকে গ্রেপ্তারে ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন সাংবাদিক নেতারা।

    সিইউজে সভাপতি তপন চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম সম্পাদক সাইদুল ইসলামের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি আলহাজ্ব আলী আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজের) সহ-সভাপতি শহীদ উল আলম, সাবেক সহ-সভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, সিইউজের সাধারণ সম্পাদক ম. শামসুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আলী, বিএফইউজের নির্বাহী সদস্য আজহার মাহমুদ, টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শফিক আহমেদ সাজিব ও দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের ব্যুরো প্রধান শামসুদ্দীন ইলিয়াস।



    সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল নগরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে এবং এতে চট্টগ্রামে কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীরা অংশ নেন।



    গত ২৫ ডিসেম্বর সকালে রাঙ্গুনিয়ার ইসলামপুর ইউনিয়নে ইট ভাটার অনিয়মের অভিযোগে সংবাদ সংগ্রহে যায় ইংরেজি দৈনিক দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের স্টাফ করেসপন্ডেন্ট আবু আজাদ। ঘটনার দিন সংবাদ সংগ্রহের একপর্যায়ে তাকে ইউপি মেম্বার মোহনের নেতৃত্বে কয়েকজন তুলে নিয়ে যায়। এরপর তাকে একটি কক্ষে আটকে রেখে মারধর, অস্ত্র ঠেকিয়ে জিম্মি এবং একপর্যায়ে চাঁদা দাবি করা হয়। এসময় ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজের নির্দেশে অভিযুক্তরা ভুক্তভোগী সাংবাদিকের মোবাইল ও টাকাসহ গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেয়।



    এ ঘটনার পরদিন ২৬ ডিসেম্বর আবু আজাদ বাদী হয়ে রাঙ্গুনিয়া মডেল থানায় ৪ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন। মামলায় অজ্ঞাতনামা আরও ৫ থেকে ৭ জনকে আসামি করা হয়। পরে ওইদিন রাতে অভিযান চালিয়ে ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে কাঞ্চন কুমার তুড়ি নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।